Thursday, February 7, 2019

সাইনুসাইটিস (Sinusitis) টাইপ, কারন, লক্ষণ এবং জটিলতা

আমাদের নাকের চারপাশে অস্থিসমূহে যে ফাঁকা স্থান বা বায়ুপূর্ণ কুঠুরি অর্থাৎ সাইনাস থাকে সেই সাইনাসের অভ্যন্তরীন আবরনি ঝিল্লিতে যখন প্রদাহ হয় একেই সাইনুসাইটিস বলা হয়। এটি আবার ব্যাকটেরিয়ার ইনফেকশনের কারণেও হতে পারে।

সাইনুসাইটিস (Sinusitis) - টাইপ

সাইনুসাইটিস মূলত দুই ধরনের হয়ে থাকে –
  • কিউট বা তীব্র
  • ক্রনিক বা দীর্ঘমেয়াদি

সাইনুসাইটিস (Sinusitis) - কারণ

  • দাঁত, চোখ, নাকের অসুখ থেকে সাইনুসাইটিস হতে পারে
  • ব্যাকটেরিয়া, ভাইরাস বা এলার্জির কারণেও সাইনুসাইটিস হয়ে থাকে
  • দীর্ঘদিন ঠান্ডা লেগে থাকলে সাইনুসাইটিস হতে পারে - এছাড়া 
  • নাকের ইনফেকশন
  • দাঁতের ইনফেকশন
  • নাকের প্যাক
  • নাকের পলিপ
  • নাকের বাঁকা হাড়
  • নাকের মাংস ফুলে বড় হয়ে যাওয়া (হাইপারট্রফিড ইনফেরিয়র টার্বিনেট)।
  • দূষিত পানি কিংবা উচ্চমাত্রার ক্লোরিনযুক্ত পানিতে গোসল করলে সাইনুসাইটিস হবার সম্ভাবনা থাকে।
  • যেকোনো আঘাতের কারণে সাইনাস ছিদ্র হয়ে উন্মুক্ত হলে ইনফেকশন হতে পারে।
  • সিস্টিক ফাইব্রোসিস।
  • এডিনয়েড বড় হয়ে গেলে
  • জন্মগতভাবে নাকের পেছনের ছিদ্রটি বন্ধ থাকা ইত্যাদি

সাইনুসাইটিস (Sinusitis) - লক্ষণ ও উপসর্গ

  • মাথা ব্যথা সাইনুসাইটিসের প্রধান লক্ষণ। কপাল ও নাকের চারপাশে ব্যথা অনুভব করবে। মাথা ভার হবে ও নিচের দিকে ঝুঁকে পড়লে ব্যথা বেড়ে যাবে। রোদে গেলেও মাথা ব্যথা বেড়ে যাবে।
  • সব সময় নাক বন্ধ থাকা
  • নাক দিয়ে অবিরত পানিপড়া 
  • হঠাৎ নাক বন্ধ হয়ে যাওয়া
  • মাথা ভারী লাগা
  • বমি বমি ভাব হবে
  • সকালে ঘুম থেকে ওঠার পর মাথাব্যথা হতে পারে
  • কাজকর্মে অনীহা
  • স্বাদ ও ঘ্রাণ বুঝতে না পারা
  • মাথা নাড়াচাড়া করলে, হাঁটলে বা মাথা নিচু করলে ব্যথার তীব্রতা আরো বেড়ে যায়
  • জ্বর জ্বর ভাব থাকে, কোনো কিছুতেই ভালো লাগে না এবং অল্পতেই ক্লান্ত হয়ে যায়
  • সাইনাস এর এক্স রে করলে সাইনাস ঘোলাটে দেখায়
 সাইনুসাইটিসের টাইপ, কারণ, লক্ষণ এবং জটিলতা সম্পর্কে বিস্তারিত রয়েছে ভিডিওতে....

সাইনুসাইটিস (Sinusitis) - জটিলতা 

সাইনাসগুলো চোখ এবং ব্রেইনের পাশে থাকে বলে সাইনাসের ইনফেকশন হলে তা চোখ এবং মস্তিষ্কেরও জটিলতা সৃষ্টি করতে পারে। যেমন-
  • অরবিটাল সেলুলাইটিস এবং এবসেস বা চোখের ভেতরের ইনফেকশন।
  • মেনিনজাইটিস বা ব্রেইনের পর্দার প্রদাহ
  • এক্সট্রাডুরাল এবং সাবডুরাল এবসেস
  • অস্টিওমায়েলাইটিস (মাথার অস্থির প্রদাহ)
  • কেভেরনাস সাইনাস থ্রম্বোসিস প্রভৃতি
  • সাইনুসাইটিসের কারণে চোখের ভেতরে ইনফেকশন ঢুকে চোখটি নষ্ট করে দিতে পারে, আবার মাথার ভেতর ইনফেকশন ঢুকে মেনিনজাইটিস এমনকি ব্রেইন এবসেসের মতে মারাত্মক জটিল রোগের জন্ম দিতে পারে।

সাইনুসাইটিস (Sinusitis) - চিকিৎসা

এলোপ্যাথিতে মূলত এই সমস্যার জন্য এন্টিবায়োটিক, নাকে বিশেষ ধরনের ড্রপ, এন্টিহিস্টামিন, ব্যথানাশক ওষুধ প্রয়োগ করা হয়ে থাকে যা বহু ক্ষেত্রেই রোগ পুরুপুরি নির্মূলে ব্যর্থ। তবে এর ভালো চিকিৎসা রয়েছে হোমিওপ্যাথিতে। এর জন্য অভিজ্ঞ একজন হোমিও ডাক্তারের পরামর্শক্রমে চিকিৎসা নেয়া জরুরী।
সাইনুসাইটিস (Sinusitis) টাইপ, কারন, লক্ষণ এবং জটিলতা ডাঃ ইমরান - ডিএইচএমএস, পিডিটি (হোমিও মেডিসিন), ঢাকা 5 of 5
আমাদের নাকের চারপাশে অস্থিসমূহে যে ফাঁকা স্থান বা বায়ুপূর্ণ কুঠুরি অর্থাৎ সাইনাস থাকে সেই সাইনাসের অভ্যন্তরীন আবরনি ঝিল্লিতে যখন প্রদাহ হয় ...
ডাঃ ইমরান; ডিএইচএমএস(হোমিওপ্যাথি) এবং ডিএমএস(অ্যালোপ্যাথি), ঢাকা।
আনোয়ার টাওয়ার, আল-আমিন রোড, কোনাপাড়া, যাত্রাবাড়ী, ঢাকা।
ফোন : ০১৬৭১-৭৬০৮৭৪ এবং ০১৯৭৭-৬০২০০৪

সকল আপডেট পেতে লাইক দিয়ে যুক্ত থাকুন আমাদের সাথে।

No comments:

Post a Comment