শুক্রবার, ৩ ডিসেম্বর, ২০২১

পিত্তথলির পাথর গলানোর উপায়! হোমিওপ্যাথি চিকিৎসা নাকি অপারেশন !

পিত্তথলির পাথর গলানোর ঔষধ, ভেষজ প্রতিকার বা হোমিওপ্যাথি চিকিৎসা, অপারেশনের খরচ বা গলব্লাডার স্টোন সার্জারি করার পর জটিলতা নিয়ে ভাবছেন অনেকেই। আজ থাকছে - পিত্তথলির পাথর হওয়ার কারণ, লক্ষণ, জটিলতা এবং এর উন্নত চিকিৎসা পদ্ধতি নিয়ে। আপনারা এই তথ্যগুলি পেয়ে উপকৃত হবেন অবশ্যই। আগেই একটি কথা বলে নেই - এখানে পিত্তথলির পাথর গলানো বলতে বুঝানো হয়েছে পাথরকে ভেঙে বা ক্ষয় করে এই সমস্যা দূর করা। 
প্রথমেই জেনে রাখুনঃ চিকিৎসা বিজ্ঞানে এটি কোলেলিথিয়াসিস Cholelithiasis নামে পরিচিত আর এই যন্ত্রনাদায়ক সমস্যা হোমিও চিকিৎসাতেই সেরে যায় অধিকাংশ ক্ষেত্রেই। তাই অপারেশন বা সার্জারির আদৌ কোন প্রয়োজন পড়ে না। তবে এর চিকিৎসার জন্য প্রয়োজন রেজিস্টার্ড এবং দক্ষ হোমিও চিকিৎসক যিনি এই সমস্যার প্রপার ট্রিটমেন্ট দিতে জানেন। দক্ষ চিকিৎসক নির্বাচনে ব্যর্থ হলে আপনি এই সমস্যা থেকে আরোগ্য লাভ করতে প্রায় শত ভাগ বিফল হবেন।
মানব দেহের বুকের পাঁজরের ডান দিকে পেটের ওপরে অংশের যকৃত বা লিভারের নিচে যুক্ত থাকে গলব্লাডার বা পিত্তথলি। আমাদের যকৃত বা লিভারে পিত্তরস বা বাইল তৈরি হয়। ছোট নালীর মাধ্যমে এই রস পিত্তথলিতে জমা হয়। পিত্তথলিতে এই রস জমা থাকে। আমরা যখন চর্বি জাতীয় খাবার খাই তখন কোলেসিস্টোবাইনিন নামে এক ধরনের হরমোন নিঃসরণ হয়। এই হরমোনের প্রভাবে পিত্তথলি সঙ্কোচিত হয় এবং জমা থাকা রস বের করে দেয়। পরে এই রস ক্ষুদ্রাতন্ত্রে গিয়ে খাদ্য হজমে সাহায্য করে।
পিত্তথলির পাথর নির্মূলে ম্যাজিক দেখাচ্ছে হোমিওপ্যাথি
পিত্তথলিতে পাথর জমা হওয়াকে পিত্তপাথুরি বলে। এতে নাভি প্রদেশে দারুণ শূল বেদনা হয়। আর এটি অতি কষ্টদায়ক ব্যাধি। বর্তমান যুগে পিত্তপাথুরির প্রকোপ প্রচণ্ড রূপে দেখা দিয়েছে। অপারেশন বা অস্ত্রোপচারের পর কিছু কিছু রোগী আরোগ্য লাভ করলেও এদের মধ্যে অনেক রোগী পরবর্তীতে ক্যান্সার, জন্ডিস, বি-ভাইরাস ইত্যাদি রোগে আক্রান্ত হচ্ছে। তাছাড়া বর্তমানে বাংলাদেশে দেখা যাচ্ছে - অপারেশনের নাম করে পিত্তথলি টাকেই কেটে ফেলে দেয়া হচ্ছে আর এর ফলে পরবর্তীতে বেশির ভাগ রোগীরাই পেটের ভীষণ জটিলতায় ভুগে থাকে।

পিত্তথলির পাথর হওয়ার কারণ

পিত্তথলি লিভার থেকে তৈরি পিত্তরস বা বাইল জমা রাখে এবং চর্বি জাতীয় খাবার খেলে হজমের জন্য পিত্তথলি থেকে পিত্তরস বেরিয়ে আমাদের খাদ্য নালীতে চলে আসে এবং হজমে সহায়তা করে। পিত্তরস পিত্তথলিতে থাকার সময়কালে পিত্তরস তথা বাইলের কিছু পরিবর্তন সাধিত হয়। পিত্তরস হলুদ রঙের তরল পদার্থ। এতে থাকে কোলেস্টেরল, ক্যালসিয়াম, লবণ, এসিড ও অন্যান্য রাসায়নিক উপাদান। এই পিত্তরসের বিভিন্ন উপাদান দিয়ে তৈরি হয় পিত্তথলির পাথর। 
  • পিত্ত একটি তরল পদার্থ যার মধ্যে কিছু কঠিন পদার্থ থাকে। তরল পদার্থের পরিমাণ কমে গেলে কঠিন পদার্থের পরিমাণ বেড়ে গেলে পাথর হতে পারে। 
  • কোন কারণে যদি পিত্তথলির সঙ্কোচন ও প্রসারণের ক্ষমতা নষ্ট হয়ে যায় তাহলে পিত্তথলিতে পাথর হতে পারে। 
  • তাছাড়া গবেষকদের মতে যারা চর্বি জাতীয় খাবার বেশি খায়, যারা ভেজাল খাবার খান, যাদের ডায়াবেটিস আছে, লিভারের রোগে যারা আক্রান্ত, যেসব নারী বারবার গর্ভবর্তী হন, যারা মোটা ও ওজন বেশি তাদের পিত্তথলিতে পাথর হতে পারে।

পিত্তথলিতে পাথর হলে তার লক্ষণ

  • উপরের পেটের ডান দিকে তীব্র ব্যথা যা ডান কাঁধে ছড়ায় এবং রোগীর বমি হয়।
  • অনেক সময় কাঁপুনি দিয়ে জ্বর আসতে পারে।
  • তৈলাক্ত খাবার, চর্বিজাতীয় খাবার বা মাংস খেলে এ রকম ব্যথা হতে পারে।
  • মধ্য পেটে ব্যথা হয়। মধ্য পেটে ব্যথা হয়ে একেবারে পেছন দিকে চলে যায়।
  • জ্বরের সঙ্গে বমি হতে পারে।
  • জ্বরের সঙ্গে জন্ডিস হতে পারে। এ ক্ষেত্রে যা হয় তা হলো পাথর হয়তো পিত্তনালিতে চলে যায়।

পিত্তপাথরের জটিলতা

পিত্তথলিতে পাথরের জটিলতা নিম্নরুপঃ 
  • গলব্লাডার বা পিত্তথলিতে প্রদাহ
  • জন্ডিস এবং এর সাথে পিত্তনালীতে প্রতিবন্ধকতা
  • অগ্ন্যাশয়ের নালীর প্রতিবন্ধকতা এবং অগ্ন্যাশয় প্রদাহ অর্থ্যাৎ প্যানক্রিয়েটাইটিস
  • গলব্লাডার বা পিত্তথলিতে ক্যান্সারের ঝুঁকি বাড়বে

পিত্তথলিতে পাথর হলে চিকিৎসা কি ?

বহু হোমিও চিকিৎসক ইতিপূর্বে বলে আসছেন, পিত্তথলিতে পাথর হলে হোমিওপ্যাথিতে অধিকাংশ রোগীই আরোগ্য হয় না এবং এর জন্য সার্জারি বা অপারেশন করা উচিত। কিন্তু আধুনিক রিয়েল হোমিওপ্যাথি ভিন্ন কথা বলছে। দেখা যাচ্ছে, প্রপার কেইস টেকিং করে যথাযথ চিকিৎসা দিলে রোগীর যাবতীয় জটিল উপসর্গ কিছু দিনের মধ্যেই দূর হয়ে যাচ্ছে এবং ধারাবাহিক চিকিৎসায় পিত্তথলির পাথরের সমস্যা পুরুপুরি নির্মূল হয়ে যাচ্ছে অধিকাংশ ক্ষেত্রেই।
তাই জেনে রাখুন যেসব হোমিও ডাক্তাররা বলে থাকে পিত্তথলির পাথর হোমিওপ্যাথিতে ভালো হয় না তারা মূলতঃ হোমিওপ্যাথিক প্রপার চিকিৎসা জানে না বরং আপনি দেখবেন কিছু গদবাধা হোমিও ঔষধ যেমনঃ কোলেস্টেরিনাম, কার্ডুয়াস মেরিয়েনাস, ক্যালকেরিয়া কার্ব, মার্ক সল, আর্ণিকা, চেলিডোনিয়াম, চায়না, ডিজিটেলিস, আর্সেনিক এল্ব, ফসফরাস, ব্রায়োনিয়া, হাইড্রাসটিস, ডায়োঙ্কোরিয়া ইত্যাদি রোগীকে ক্রমাগত প্রয়োগ করে করে ব্যর্থ হয়ে বলছে রোগী আর ভালো হবে না তাই অপারেশন করুন!
ভালো করে জেনে রাখুন, কিছু ক্ষেত্রে এই ঔষধগুলি প্রয়োগ করে রোগীর যন্ত্রনা কিছুটা কমলেও অধিকাংশ ক্ষেত্রেই সমস্যা আদৌ নির্মূল করে না। 
তাই পিত্তথলিতে পাথর হলে এর চিকিৎসার জন্য রেজিস্টার্ড এবং দক্ষ একজন হোমিও চিকিৎসক খুঁজে বের করুন যিনি প্রপার কেইস টেকিং এবং হোমিওপ্যাথিক নিয়মে ইনভেস্টিগেশন করে যথাযথ চিকিৎসা দিতে পারেন। দক্ষ চিকিৎসক নির্বাচন করে চিকিৎসা নিতে পারলে আপনি সুনিশ্চিত ফলাফল পাবেন ইনশা-আল্লাহ। কারণ পিত্তথলির পাথর নির্মূলের ক্ষেত্রে হোমিওপ্যাথির সাফল্যের হারই বেশি। তবে এক্ষেত্রে প্রপার ইনভেস্টিগেশনের জন্য রোগীর পূর্ব রোগের ইতিহাস, তার পিতা-মাতা, দাদা-দাদী এবং নানা-নানীর হিস্ট্রি জানা প্রয়োজন যা চিকিৎসক কেইস টেকিং এর সময় জেনে নিবেন। পিত্তথলির পাথর সমস্যায় শুরুতেই অপারেশন করার চিন্তা না করে আগে মেডিসিন প্রয়োগ করে সারানোর চেষ্টা করা উচিত।

যা যা জেনেছেন 

  • কলিলিথিয়াসিস
  • পিত্তনালীর পাথর
  • গলব্লাডার স্টোন সার্জারি
  • গলব্লাডারে পাথর হোমিওপ্যাথি
  • পিত্তথলির পাথর হওয়ার কারণ
  • পিত্তথলি ফেলে দিলে কি হয়
  • পিত্তথলি অপারেশন পরবর্তী জটিলতা
  • পিত্তথলির পাথর ডাক্তার ঢাকা
  • পিত্তথলির পাথর সাইজ
  • পিত্তথলির পাথর এর লক্ষণ
  • পিত্তথলির পাথর কেন হয়
  • পিত্তথলিতে পাথর হলে কি কি সমস্যা হয়
  • পেটে পাথর হলে কি খেলে ভালো হবে
  • পিত্তথলির পাথরের হোমিও চিকিৎসা
  • পিত্তথলির পাথর অপারেশন খরচ কত
  • পিত্তথলির পাথর in english
  • গলব্লাডার স্টোন কি
  • গলব্লাডার স্টোন অপারেশন কস্ট ইন বাংলাদেশ
  • পিত্তথলির পাথর অপারেশন খরচ কত বাংলাদেশ
Dr. Delowar Jahan Imran
ডাঃ দেলোয়ার জাহান ইমরান
ডিএইচএমএস (বিএইচএমসি এন্ড হসপিটাল), ডিএমএস; ঢাকা
রেজিস্টার্ড হোমিওপ্যাথিক চিকিৎসক (রেজিঃ নং-৩৩৪৪২)
যোগাযোগঃ আনোয়ার টাওয়ার, আল-আমিন রোড, কোনাপাড়া, ডেমরা, ঢাকা।
Phone: +88 01671-760874; 01977-602004 (শুধু এপয়েন্টমেন্টের জন্য)
About Me: Profile ➤ Facebook ➤ YouTube ➤