রবিবার, ২৬ এপ্রিল, ২০২০

আইবিএস IBS এর প্রকৃত লক্ষণ এবং উপসর্গ - রোগীদের কেস টেকিং (Case Taking) থেকে

আগের পর্বে আমরা IBS ইরিটেবল বাওয়েল সিন্ড্রোম বা আইবিএস এর প্রকৃত ও অপ্রকৃত কারণ সম্পর্কে জানলাম। এ পর্যায়ে Irritable bowel syndrome (IBS) এর প্রকৃত লক্ষণ এবং উপসর্গ সম্পর্কে বিস্তারিত আলোকপাত করবো। এটা মূলত একটি উপসর্গ ভিত্তিক সমস্যা তবে এর লক্ষণ এবং উপসর্গগুলির ব্যক্তি বিশেষে ভিন্নতা পরিলক্ষিত হয়ে থাকে। আজকে আমার পেসেন্টদের কেইস টেকিং থেকে আইবিএস IBS এর বেশ কিছু প্রকৃত লক্ষণ এবং উপসর্গ তুলে ধরবো। তবে সাধারণ ভাবে আমরা এই সমস্যায় যে লক্ষণ ও উপসর্গগুলি দেখতে পাই -

আইবিএস এর প্রকৃত লক্ষণ এবং উপসর্গ - সাধারণ

  • পেটের অস্বস্থি, পেট ফাঁপা, পেটে ব্যথা
  • পেটে ভুটভাট শব্দ হওয়া 
  • ক্ষুধা মন্দা হওয়া বা মোটেই না থাকা আবার কখনো অতিরিক্ত ক্ষুধা থাকা
  • গলা বুক জ্বালা ও বমি বমি ভাব
  • ঢেকুর আসা এবং খাওয়ার পর এর তীব্রতা বেড়ে যাওয়া
  • প্রতিনিয়ত গ্যাস হওয়া এবং ঘন ঘন মলদ্বার দিয়ে গ্যাস বের হওয়া
  • ঘন ঘন পাতলা মল কিংবা পানির মতো তরল উদরাময়
  • পায়খানায় যাওয়ার বেগ সামলাতে না পারা এবং মলদ্বারে ব্যথা
  • খাওয়ার পরই টয়লেটের বেগ হওয়া
  • প্রতিবার মলত্যাগের আগে বা পরে এবং মলের সঙ্গে মিউকাস ক্ষরণ
  • কোষ্টবদ্ধ অবস্থায় মলের বেগ না আসা কিংবা খুবই শক্তমল কষ্টে অল্প অল্প বের হওয়া
  • প্রচণ্ড শারীরিক দুর্বলতা, মস্তিষ্ক ক্লান্তি ও কাজের প্রতি অমনোযোগিতা
  •  খিটখিটে মেজাজ, উত্তেজনা, অবসাদ এবং উদ্বিগ্নতা
  • শরীরের ওজন হ্রাস পাওয়া
আইবিএস IBS এর প্রকৃত লক্ষণ এবং উপসর্গ

আইবিএস এর প্রকৃত লক্ষণ এবং উপসর্গ - রোগীদের কেস টেকিং থেকে

হোমিওপ্যাথি ছাড়া অন্যান্য ট্রিটমেন্টে সিস্টেমে শুধু পেটের যন্ত্রনাকেই আইবিএস এর লক্ষণ এবং উপসর্গ হিসেবে প্রাধান্য দেয়া হয়। কিন্তু হোমিওপ্যাথি মূলত সম্পূর্ণ মানুষটির লক্ষণ ও উপসর্গকে প্রাধান্য দিয়ে থাকে কারণ সবকিছু মিলেই কিন্তু একটি মানুষ। এর আগের পর্বে প্রতিটি মানুষের ভেতরের প্রকৃত রোগ বা তার জেনেটিক মেটেরিয়াল সম্পর্কে ধারণা দিয়েছিলাম। মূলত সেই প্রকৃত রোগ বা তার জেনেটিক মেটেরিয়াল মানব দেহ-মনে আইবিএস নামক সমস্যায় যেসকল লক্ষণ এবং উপসর্গ তৈরি করে সেগুলিই হলো এই রোগের জন্য প্রকৃত উপসর্গ তবে সেগুলি ব্যক্তি বিশেষের ক্ষেত্রে ভিন্ন ভিন্ন ভাবে প্রকাশিত হয়ে থাকে।

মানুষ যখন রোগাক্রান্ত হয় তখন তার শরীরে একটা সার্বিক পরিবর্তন পরিলক্ষিত হয়। আইবিএস এর ক্ষেত্রে পেটের নানারূপ লক্ষণের সাথে আপনার পিপাসা, জিহ্বা, লালা, ক্ষুধা, খাদ্য, ঘুম, স্বপ্ন, ঘাম, পায়খানা, প্রস্রাব ইত্যাদির ক্ষেত্রেও কোন না কোন পরিবর্তন পরিলক্ষিত হবে। মূলত সেগুলিও আপনার রোগের ক্ষেত্রে প্রধান লক্ষণ বলে বিবেচিত হবে। কিন্তু পৃথিবীর কোন চিকিৎসা শাস্ত্রই এই বিষয়গুলি সার্বিক ভাবে পর্যালোচনা করে চিকিৎসা দিতে পারে না, একমাত্র হোমিওপ্যাথি ছাড়া। অন্যান্য সকল চিকিৎসা শাস্ত্র মূলত স্থানিক বা উপরি উপরি চিন্তা করে এই সমস্যাগুলি সমাধানের চেষ্টা করে আর বিফল হয়।
পৃথিবীর একটি মাত্র চিকিৎসা শাস্ত্রই আপনার ভেতরের মানুষটাকে নিয়ে চিন্তা করে আর সেটা হলো - হোমিওপ্যাথি।
হোমিওপ্যাথি যেহেতু একটি মানুষের সার্বিক অবস্থা নিয়ে চিন্তা করে ট্রিটমেন্ট দিয়ে থাকে তাই প্রকৃত আরোগ্য লাভে কিছুটা সময় লাগলেও রোগী নির্মল আরোগ্য লাভ করে বিধায় দেহ-মন সর্বদিক থেকেই সে ভালো থাকে - যাকে বলে সুস্বাস্থ্য। এখানে সাধারণের বুঝার সুবিধার্থে আমার কিছু পেসেন্টের আইবিএস এর সার্বদৈহিক লক্ষণ ও উপসর্গ সহজ বাংলায় তুলে ধরা হলো -

আইবিএস কেস : এক (....হোসেন)

১০ বছর যাবৎ আইবিএস সমস্যায় ভুগছেন। এ পর্যন্ত বিভিন্ন চিকিৎসা নিয়ে ভালো থাকার চেষ্টা করেছেন। এখানে তার লক্ষণ সমষ্টি সম্পর্কে আলোকপাত করা হলো -
  • খাওয়ার সাথে সাথেই পেট ফুলে যায় 
  • পেটে জ্বালাপোড়া
  • টক ঢেকুর খাওয়ার পর বেশি
  • দিন ৭/৮ বার টয়লেটে যেতে হয়
  • যখন তখন পায়খানার বেগ চাপে
  • আমযুক্ত, নরম বা পাতলা পায়খানা 
০১. সার্বদৈহিক লক্ষণ এবং উপসর্গ
  • পিপাসা : স্বাভাবিক
  • জিহ্বা : সাদা প্রলেপযুক্ত
  • লালা : স্বাভাবিক 
  • ক্ষুধা : কম, খাবারে অনীহা
  • ইচ্ছা : ডিম, ভাজাপোড়া, টক, ঝাল, মাংস এবং মসলাযুক্ত খাদ্য
  • অনিচ্ছা : মিষ্টি, রুটি
  • অসহ্য: দুধ, ডিম, ভাজাপোড়া, মাংস, মসলাযুক্ত খাদ্য
  • ঘাম : স্বাভাবিক
  • ঘুম : কম, ৩/৪ ঘন্টার মতো 
  • স্বপ্ন: মল-মূত্র, ময়লা আবর্জনা, নদী, পানি
  • পায়খানা : নরম, পাতলা, আমযুক্ত পায়খানা, দুর্গন্ধযুক্ত, দিনে ৭/৮ বার হয়, সকালের দিকে বেশি, মাঝে মাঝে পায়খানার চাপে ঘুম ভাঙে। 
  • প্রস্রাব : স্বাভাবিক 
  • কখন বাড়ে : সকালের দিকে
  • কিসে বাড়ে : খাওয়ার পর,  খাবারে অনিয়মে, দুধ, ডিম, ভাজাপোড়া, মাংস, মসলাযুক্ত খাদ্যে
  • কখন কমে :...
  • কিসে কমে : খালি পেটে উপশম 
  • কাতরতা : শীত কাতর এবং গোসলে অনীহা রয়েছে 
  • মন : খিটখিটে, অবসাদ ভাব এবং উদ্বিগ্নতা
পূর্ব চিকিৎসা :
  • এলোপ্যাথি - Mebeverine, Metronidazole ইত্যাদি 
  • হোমিওপ্যাথি - Merc Sol, Merc Cor, Nux Vom, Carbo Veg, Iris Vers, China, Chaparro, Natrum Phos, Sulphur, Natrum Sulph
০২. পার্সোনাল হিস্ট্রি :
  • শিশুকালে ঘনঘন আমাশয় হতো
  • শিশুকাল থেকেই মাঝে মাঝে জ্বর এবং পাতলা পায়খানা হতো
  • মায়ের বুকের দুধ খেত না
  • এলার্জি আছে, মুখে ঘাঁ আছে
  • ঠান্ডা এবং হাঁচি সর্বদা লেগেই থাকে
০৩. ফ্যামিলি হিস্ট্রি :
  • পিতা : বাতের ব্যথা, এলার্জি, সামান্যতেই ঠান্ডা লাগে
  • মাতা : গ্যাস্ট্রিক, বাতের ব্যথা
  • দাদা : সব সময় আমাশয় লেগেই থাকতো
  • দাদী : পেটে টিউমার
  • নানা : খাদ্য নালীতে ক্যান্সার
  • নানী : DM, CVA

আইবিএস কেস : দুই (....রহমান)

৭ বছর যাবৎ আইবিএস সমস্যায় ভুগছেন। এ পর্যন্ত বিভিন্ন চিকিৎসা নিয়েছেন। এখানে তার লক্ষণ সমষ্টি সম্পর্কে আলোকপাত করা হলো -
  • পেটে একটা অস্বস্থি সর্বদা লেগেই থাকে
  • টয়লেটের সমস্যাটাই বেশি অনুভব করেন
  • দিন ৩/৪ বার টয়লেট হলেও...পরিষ্কার হয় না
  • যখন তখন পায়খানার বেগ পায় কিন্তু সব সময় হয়না
  • মাঝে মাঝে মলদ্বারে ব্যথা হয়
  • গাড়িতে চড়তে পারেন না
০১. সার্বদৈহিক লক্ষণ এবং উপসর্গ
  • পিপাসা : অত্যধিক
  • জিহ্বা : সাদা, ময়লাযুক্ত
  • লালা : মাঝে মাঝে রাতে ঘুমের মধ্যে, পাতলা
  • ক্ষুধা : প্রবল (Ravenous)
  • ইচ্ছা : মাছ, গরম প্রকৃতির খাদ্য, মিষ্টি 
  • অনিচ্ছা : টক, ঝাল, মাংস, ঠান্ডা, মসলাজাতীয় খাবার
  • অসহ্য : দুধ, মাংস, ফাস্টফুড, ঝাল, ভাজাপোড়া, মসলাজাতীয় খাবার, জলীয় শাকসবজি
  • ঘাম : বেশি, হাত এবং পায়ের পাতা ঘামে, দুর্গন্ধযুক্ত 
  • ঘুম : স্বাভাবিক
  • পায়খানা : পাতলা পায়খানা, দিনে ৩/৪ বার হয়, সকালের দিকে, মাঝে মাঝে সন্ধ্যার দিকে একবার
  • প্রস্রাব : ঘনঘন প্রস্রাব হয়, দিনে এবং রাতে একই
  • কখন বাড়ে : সকালের দিকে
  • কিসে বাড়ে : দুধ, মাংস, ফাস্টফুড, ভাজাপোড়া, মসলাজাতীয় খাবার, জলীয় শাকসবজিতে
  • কখন কমে :  .....
  • কিসে কমে : বায়ু নির্গমনে, ঢেকুরে উপশম, টয়লেটের পর
  • কাতরতা : শীত কাতর এবং গোসলে অনীহা রয়েছে 
  • মন :  খিটখিটে, অবসাদ ভাব এবং উদ্বিগ্নতা
  • পূর্ব চিকিৎসা : এলোপ্যাথি, কবিরাজি এবং হোমিওপ্যাথি
০২. পার্সোনাল হিস্ট্রি : দেয়া হলো না।
০৩. ফ্যামিলি হিস্ট্রি :  দেয়া হলো না।

আইবিএস কেস : তিন (....সরকার)

প্রায় ৭ বছর যাবৎ আইবিএস সমস্যায় ভুগছেন। এ পর্যন্ত বিভিন্ন চিকিৎসা নিয়েছেন। এখানে তার লক্ষণ সমষ্টি সম্পর্কে আলোকপাত করা হলো -
  • খাবার খেলেই পেট ফুলে যায়
  • তলপেট সব সময় ভারী হয়ে থাকে
  • নাভির নিচে জ্বলে
  • আমাশয় - আম এবং রক্ত যায়
  • টানা ৩ বছর যাবৎ ঔষধ খাচ্ছে 
০১. সার্বদৈহিক লক্ষণ এবং উপসর্গ
  • পিপাসা :স্বাভাবিক
  • জিহ্বা : হালকা সাদা প্রলেপযুক্ত
  • লালা : স্বাভাবিক
  • ক্ষুধা : ক্ষুধাহীনতা
  • ইচ্ছা : মাছ, শাকসবজি, টক, মিষ্টি, ঠান্ডা, হালকা ঝাল,
  • অনিচ্ছা : গরুর মাংস, তৈলাক্ত খাবার, বেশি ঝাল
  • অসহ্য : দুধ, মাংস, বেশি ঝাল
  • ঘাম : স্বাভাবিক
  • ঘুম : স্বাভাবিক
  • স্বপ্ন : পড়ে যাওয়া, মৃত মানুষ, মৃত আত্মীয়স্বজন
  • পায়খানা : নরম,  আম-রক্ত মিশ্রিত। দিনে ৫/৬ বার
  • প্রস্রাব : স্বাভাবিক
  • বায়ু নিঃসরণ : দুর্গন্ধযুক্ত
  • কখন বাড়ে : সকালের দিকে
  • কিসে বাড়ে : দুধ, মাংস, খাবারে অনিয়ম হলে
  • কখন কমে : .....
  • কিসে কমে : বায়ু নিঃসরনে, ঢেকুরে, টয়লেটের পর 
  • কাতরতা : উভয় কাতর
  • মন : উদ্বিগ্নতা, ভয় ভয় ভাব, একা থাকতে ভয়, রাতে ভয়, জিনভুতের ভয়
  • পূর্ব চিকিৎসা : এলোপ্যাথি এবং হোমিওপ্যাথি
০২. পার্সোনাল হিস্ট্রি :
  • ১০ বছর বয়সে পক্স হয়েছিল
  • ১১ বছর বয়সে টাইফয়েড হয়েছিল
  • ১৫ বছর বয়সে জন্ডিস হয়েছিল
০৩. ফ্যামিলি হিস্ট্রি :
  • পিতা : Liver Problem, DM, HTN
  • মাতা : বাতের ব্যথা
  • দাদা : কিছু বলতে পারেনি
  • দাদী : কিছু বলতে পারেনি
  • নানা : Anal fissure
  • নানী : সব সময় পেটের ব্যথায় কষ্ট পেতো
এখানে মূলতঃ বিষয়টি বুঝানোর জন্য কিছু তথ্য উপস্থাপন করা হল পেসেন্টের কেস টেকিং থেকে। এভাবে আইবিএস এ আক্রান্ত রোগীর সব সিম্পটম নিয়েই চিন্তা করে চিকিৎসা দিতে হয় যা হোমিওপ্যাথি ছাড়া বিশ্বের আর কোন ট্রিটমেন্ট সিস্টেমই দিতে পারে না। হোমিওপ্যাথি আপনার ভেতরের মানুষকে নিয়ে চিন্তা করবে উপরি উপরি চিন্তা করে একটি বা দুটি লক্ষণকেই প্রাধান্য দিবে না। যখন দুয়েকটি লক্ষণ চিন্তা না করে সম্পূর্ণ মানুষটিকে নিয়ে চিন্তা করে চিকিৎসা করা হয় তখন সেই মানুষটিই পরিপূর্ণ সুস্থতা লাভ করে যাকে বলা হয় - সুস্বাস্থ। আর এই কাজটি করে থাকে হোমিওপ্যাথি।

যা যা জেনেছেন

  • আই বি এস রোগের লক্ষণ
  • আই বি এস থেকে মুক্তির উপায় কি
Dr Imran
ডাঃ দেলোয়ার জাহান ইমরান
ডিএইচএমএস, ডিএমএস, বিএসসি এন্ড এমএসসি; ঢাকা
রেজিস্টার্ড হোমিওপ্যাথিক চিকিৎসক (রেজিঃ নং-৩৩৪৪২)
যোগাযোগঃ আনোয়ার টাওয়ার, আল-আমিন রোড, কোনাপাড়া, যাত্রাবাড়ী-ডেমরা রোড, ঢাকা।
Phone: +88 01671-760874; 01977-602004 || E-mail : delowaridb@gmail.com
About Me: Profile ➤ Facebook ➤ YouTube ➤