শনিবার, ৯ ফেব্রুয়ারী, ২০১৯

নাকে পলিপ, মাংস বৃদ্ধি! কারণ উপসর্গ এবং হোমিওপ্যাথিক ঔষধ

নাকের পলিপকে অনেকেই পলিপাস এবং নাকের মাংস বৃদ্ধি বলে থাকেন। আমাদের নাকের চারপাশে অস্থিসমূহে যে ফাঁকা স্থান বা বায়ুপূর্ণ কুঠুরি অর্থাৎ সাইনাস থাকে সেগুলির মধ্যে ইথময়েড সাইনাস থেকেই মূলত বেশির ভাগ ক্ষেত্রে পলিপ তৈরি হয়। তবে ম্যাক্সিলারি সাইনাস থেকেও পলিপ তৈরি হতে পারে। আবার নাকের ভেতরে, পার্শ্ব দেয়ালে দুই দিকে দুইটি তাকের মতো মাংসপিণ্ড অর্থাৎ ইনফেরিয়র টারবিনেট থাকে। যখন প্রদাহ হয়ে এর আকৃতি বড় হয়ে যায় তখন তাকে হাইপারট্রফি ইনফেরিয়র টারবিনেট Inferior Turbinate Hypertrophy বলা হয় যা মূলত পলিপ নয় কারণ এটি সাইনাস থেকে আসে না বরং নাকের ভিতর থেকেই এটি উৎপত্তি লাভ করে থাকে। যদিও অনেক সময় দুটি একই কারণে হয়ে থাকে।

নাকে পলিপ - কারণ

  • সাধারণভাবে বলা যায় নাকের এলার্জি এর অন্যতম কারণ। এ এলার্জি নাকের ভেতরে ধুলাবালি বা ধোঁয়ার এলার্জি থেকে হতে পারে।
  • অনেকে মনে করেন, নাকের ভেতরে ক্রনিক ইনফেকশনও এ এলার্জির কারণ হতে পারে। নাকের ভেতরে ফাংগাল ইনফেকশনে এলার্জি থেকে কিছু কিছু রোগীর উভয় নাকে এবং অনেক সাইনাসজুড়ে পলিপ তৈরি হয়।
  • নাকের ভেতরে রক্তনালির অসাঞ্জস্যতা বা অস্থিরতা থেকেও অনেক সময় পলিপ তৈরি হয় বলে অনেকে মনে করেন। উল্লেখ্য, নাকের এলার্জি যেটাকে আমরা এলার্জিক রাইনাইটিস বলি, গলার এলার্জি যেটাকে আমরা এলার্জিক ফ্যারিনজাইটিস এবং ফুসফুসের এলার্জি যেটাকে আমরা অ্যাজমা বা হাঁপানি বলে থাকি। এর একটা আরেকটার সঙ্গে সম্পৃক্ত। যাদের নাকের এলার্জি আছে তাদের শতকরা ১৭ থেকে ১৯ ভাগ রোগীর ক্ষেত্রে হাঁপানিও আছে।

নাকে পলিপ - লক্ষণ ও উপসর্গ

  • নাক বন্ধ থাকা- এক বা দুই নাসারন্ধ্র একসঙ্গে বন্ধ থাকতে পারে
  • নাক দিয়ে পানি পড়া
  • বেশি বেশি হাঁচি পাওয়া
  • নাকে কোনো গন্ধ না পাওয়া
  • মাথাব্যথা থাকা
  • নাকিসুরে কথা বলা
  • মুখ হা করে ঘুমানো
  • ইত্যাদি

নাকে পলিপ - রোগ নির্ণয় 

রোগীকে এইসব রক্তের IGE, Eosinophil, ESR এবং X-Ray-PNS ইত্যাদি করার পরে নিশ্চিত হয়ে প্রপার হোমিওপ্যাথিক চিকিৎসার মাধ্যমে এই সমস্যা চিরতরে নির্মূল করা হয়ে থাকে। তবে এর জন্য রেজিস্টার্ড এবং অভিজ্ঞ একজন হোমিও চিকিৎসকের পরামর্শক্রমে চিকিৎসা নিন।

নাকে পলিপ - সতর্ক হন 

নাকের পলিপের চিকিৎসা নিতে গিয়ে অনেকেই নিজের অজ্ঞতা বশতঃ চটকদারী বিজ্ঞাপনের ফাঁদে পড়ে দ্রুত আরোগ্য করার লক্ষ্যে এসিড জাতীয় ক্ষতিকর পদার্থ বা তরল দ্রব্য বা চূর্ণ পাউটার দ্বারা নাকের পলিপ পুড়ানো বা নাকের পলিপে লাগিয়ে সেটিকে অপসারণ করার বৃথা চেষ্টা করে থাকে। এতে অনেকেরই নাকে গর্ত হয়ে যায় আবার কারো কারো নাকে দুরারোগ্য ক্ষত তৈরী হয়। এ ধরনের চিকিৎসা স্বীকৃত ট্রিটমেন্ট সিস্টেম এ্যালোপ্যাথি, হোমিওপ্যাথি, আয়ুর্বেদিক পদ্ধতিতে নেই। এই প্রকারের অপচিকিৎসায় নাকের আবরণীর ক্ষতি হয়ে থাকে। ফলে নাকের হাড়ে ও ঝিল্লি স্থায়ীভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হয়ে ক্ষত সৃষ্টি হয়। কারো ক্ষেত্রে নাকের ভিতরে পঁচন ধরে ও মাংস পঁচনের মত গন্ধ বের হয়। এই ধরণের কুফল রোগীকে সারা জীবন ধরেই বহন করতে হতে পারে। তাই চটকদারী বিজ্ঞাপনের ফাঁদে পড়ে এই ধরণের অপচিকিৎসা নেয়া থাকে বিরত থাকুন।

নাকে পলিপ - চিকিৎসা 

স্বীকৃত চিকিৎসা পদ্ধতিগুলির মধ্যে এলোপ্যাথিতে তেমন কোন ঔষধ নেই যা দিয়ে নাকের পলিপ নির্মূল করা যায়। তাই এলোপ্যাথিক চিকিৎসকরা মূলত সার্জারী করে সেগুলি অপসারণ করার পরামর্শ দিয়ে থাকেন যদিও সার্জারী খুব বেশি ফল দেয় না, কারণ কিছু দিন পর সেটি আবার দেখা দেয়। এর পেছনের বাস্তব কারণ হলো - সার্জারি করে রোগের লক্ষণ ঠিক করা হয় কিন্তু প্রকৃত রোগটি নির্মূল করা যায়  না। প্রকৃত রোগ মূলত মানুষের ভেতরে থাকে। সেটির চিকিৎসা না করা হলে বার বার নাকে পলিপ হতে থাকে। প্রকৃত রোগটি চিকিৎসার মাধ্যমে দূর করার জন্য উন্নত হোমিওপ্যাথিক চিকিৎসা রয়েছে যেখানে পার্শ্বপ্রতিক্রিয়াহীন হোমিও ঔষধ প্রয়োগ করেই এই সমস্যা দূর করা হয়ে থাকে এবং এর সাথে নাকের পলিপও দূর হয়ে যায় সারা জীবনের জন্য। রেপার্টরীতে আমরা নাকের পলিপের চিকিৎসার জন্য যে যে ঔষধ পেয়ে থাকি-
নাকে পলিপ হোমিওপ্যাথিক ঔষধ
অভিজ্ঞ একজন হোমিপ্যাথিক চিকিৎসক পেসেন্টের কেইস টেকিং এর সময় বিস্তারিত হিস্ট্রি নিয়ে নির্দিষ্ট ঔষধ নির্দিষ্ট মাত্রায় নির্দিষ্ট সময়ের জন্য প্রয়োগ করে ইম্প্রোভমেন্টে নিয়ে যাবেন। ধৈর্য্য ধরে চিকিৎসা নিলে পলিপের সমস্যাটি স্থায়ী ভাবে ঠিক হয়ে প্রপার হোমিওপ্যাথিক চিকিৎসায়। 
Dr Imran
ডাঃ দেলোয়ার জাহান ইমরান
ডিএইচএমএস (বিএইচএমসি এন্ড হসপিটাল), ডিএমএস; ঢাকা
রেজিস্টার্ড হোমিওপ্যাথিক চিকিৎসক (রেজিঃ নং-৩৩৪৪২)
যোগাযোগঃ আনোয়ার টাওয়ার, আল-আমিন রোড, কোনাপাড়া, যাত্রাবাড়ী-ডেমরা রোড, ঢাকা।
Phone: +88 01671-760874; 01977-602004 || E-mail : delowaridb@gmail.com
About Me: Profile ➤ Facebook ➤ YouTube ➤